মোদি করোনার দায়ভার মুসলমানদের ওপরে চাপিয়ে দেওয়ার টার্গেটে পরিণত করতে চায়: ইমরান খান


ভারতের হিন্দুত্ববাদী মোদি সরকার করোনা ভাইরাসের দায়ভার মুসলমানদের ওপরে চা'পিয়ে দিয়ে তাদেরকে টা'র্গেটে পরিণত করতে চাচ্ছে বলে অ'ভিযো'গ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। 
রোববার এক টুইট বার্তায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

ইমরান খান বলেন, ভারত সরকার করোনা পরিস্থিতিতে মুসলমানদের সঙ্গে গণহত্যার মত আচরণ করছে। করোনায় আক্রান্ত মুসলমানদেরকে হিন্দু রোগী থেকে আলাদা করে ফেলছে। এমনকি অতিউৎসাহী উগ্র হিন্দুরা একটি হিন্দু ছেলেকে মুসলমান ভেবে হত্যা করে ফেলেছে। বর্তমানে মোদি সরকারের পদক্ষেপগুলো গোঁড়া হিন্দু আদর্শ ও কুসংস্কারের একটি অংশ।

এছাড়াও মোদি সরকার করোনাভাইরাস প্রতিরোধে নিজেদের ব্যর্থতা ধামাচাপা দিতে গিয়ে জনগণের মনোযোগ সরানোর জন্য মুসলমানদের টার্গেটে পরিণত করছে।

তিনি আরোও বলেন, ইহুদিদের বিরুদ্ধে জার্মানিরা যেসব পদক্ষেপ নিয়েছিল, মোদি সরকার ভারতের মুসলমানদের বিরুদ্ধে সে পথেই অগ্রসর হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ মার্চ দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজে তাবলিগ জামাতের জমায়েতকে কেন্দ্র করে ভারত সরকার এবং তাদের পক্ষপাতদুষ্ট মিডিয়া একচেটিয়াভাবে মুসলমানদের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রচার করতে থাকে। ফলে ভারতীয় মুসলমানরা এক প্রকার হুমকির মধ্যে রয়েছে।

এ ঘটনার ফলে হিন্দু মুসলমানদের মাঝে সহিংসতা বৃদ্ধি পায় এবং ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে মুসলমানদের ওপরে অসহনীয় অত্যাচার ও নিপীড়ন চলতে থাকে। ভারতে করোনা আক্রান্ত মুসলমানদের স্বাস্থ্যসেবা পর্যন্ত দেয়া হচ্ছে না বলেও অভিযোগ রয়েছে। এর ফলে গুজরাটের আহমেদাবাদের একটি সরকারী হাসপাতালে হিন্দু রোগীদের থেকে মুসলিম রোগীদের আলাদা করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সূত্র : জিয়ো নিউজ

Post a Comment

0 Comments