মেয়ের থেকেও কমবয়সী যুবতীকে বন্দুক ঠেকিয়ে ধর্ষণ || ভাইরাল ভিডিও


অনলাইন ডেস্ক :: মেয়ের থেকেও কমবয়সী এক যুবতীকে ধর্ষণ করলো সন্তোখ সিং জলন্ধ নামের এক অভিযুক্ত ব্যক্তি। তবে তিনি সুখ প্রধান নামেই অনেক পরিচিত। ঘটনাটি ঘটে গত বৃহস্পতিবার (১৪ মে) ভারতে। 

জানা যায়, ওই ধর্ষক সন্তোখ সিং ‘বিগ বস ১৩’র প্রতিযোগী শেহনাজ গিলের বাবা। 

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ২০ বছরের এক যুবতীকে মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে ধর্ষণ করেছেন। এ ঘটনায় গত মঙ্গলবার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার (১৪ মে) সন্তোখ সিং নিজের গাড়িতে তুলে নিয়ে ২০ বছরের ওই যুবতীকে ধর্ষণ করেন। এ বিষয়টি কাউকে জানালে সন্তোখ সিং প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেন তাকে। পরে ওই যুবতী পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন, তাকে মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়েছে।

পুলিশ উপপরিদর্শক (এসআই) হরপ্রীত সিং জানান, বিষয়টি জানার পর পরই ইতোমধ্যে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, এ ঘটনায় সন্তোখ সিংয়ের নামে মামলাও হয়েছে।

ঘটনা জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, গত বৃহস্পতিবার (১৪ মে) ওই যুবতী এবং তার এক বান্ধবী জলন্ধর থেকে বিয়াসের দিকে যাচ্ছিলেন লাকি সিন্ধু নামে তাদেরই এক বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে। বিয়াসে পৌঁছাতেই ঘটে এই ঘটনা।

ওই দিন বিকাল সাড়ে ৫টা নাগাদ ওই যুবতী বিয়াসে পৌঁছার পর পরই তাকে গাড়িতে তুলে নিয়ে মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে ধর্ষণ করেন অভিযুক্ত সন্তোখ সিং। ঘটনাটি কাউকে জানালে প্রাণে মেরে দেয়ার হুমকিও দেয়া হয় যুবতীকে। 

পুলিশকে ওই যুবতী আরও জানিয়েছেন, তিনি ভয়ে বিষয়টি কাউকে জানাতে পারছিলেন না। কিন্তু এ ঘটনার বিষয়টি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করলে তারা পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়েরের পরামর্শ দেয়। তার পর গত ১৯ মে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ জমা করেন ওই যুবতী। 

সিনিয়র পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট বিক্রমজিত সিং দুগ্গল জানান, পুলিশ আইপিসি-এর ৩৭৬, ৫০৬ ধারায় বিয়াস থানায় মামলা নিয়েছে। যদিও এ ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Post a Comment

0 Comments