এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল সহজে পেতে লাগবে নিবন্ধন


ডেস্ক রিপোর্ট:: মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি)  ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে শিক্ষাবোর্ডগুলো। পরীক্ষার ফলাফল ঈদুল ফিতরের পরে প্রকাশ করা হবে। ফল মোবাইলে আরো সহজভাবে পেতে করতে হবে নিবন্ধন।

মঙ্গলবার (১৯ মে) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন গণমাধ্যমকে তথ্যটি জানিয়েছেন। 

তিনি বলেন, ঈদের আগে ফলপ্রকাশের চিন্তা ছিল। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি ও ঈদের ছুটির কারণে সেটা সম্ভব হচ্ছে না। ঈদের পর শিক্ষার্থীরা ফল পাবে।

এই প্রসঙ্গে সচিব মাহবুব হোসেন জানান, এবার আরো সহজে আগে আগে খুদে বার্তার মাধ্যমে ফল জানার ব্যবস্থা করেছে শিক্ষাবোর্ডগুলো।

আপাতত ২৭ ও ২৮ মে প্রকাশের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। করোনাভাইরাসের কারণে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করতে এবার শিক্ষার্থীর ঘরে এই ফল পৌঁছানো হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ফল না দেয়ার প্রাথমিক চিন্তাও আছে। এ লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের মোবাইল নম্বরের নিবন্ধন কাজ চলছে।

এতদিন যেহেতু ফল প্রকাশের দিন এসএমএস করলে ফিরতি মেসেজে জানিয়ে দেয়া হতো ফল। কিন্তু সেই খুদে বার্তা ফিরতি মেসেজে ফল পেতে বেশ সময় নিত। এবারের এ ব্যবস্থায় আধ ঘণ্টার মধ্যেই ফল পেয়ে যাবে শিক্ষার্থীরা। তবে পূর্বনির্ধারিত নিয়মেও ফল প্রকাশ করা হবে। ফলে স্কুলে গিয়ে ফল আনার নিয়মটা বোধহয় এবার আর থাকছে না।

ঘরে থেকেই সরাসরি মোবাইলে ফল পেতে প্রাক নিবন্ধনের জন্য যেকোনো মোবাইল অপারেটরের নম্বর থেকে মেসেজ করতে হবে। সেজন্য টাইপ করতে হবে এই নিয়মে: SSC<>Board Name (প্রথম তিন অক্ষর)<>Roll<>Year আর এটি পাঠিয়ে দিতে হবে ১৬২২২ নাম্বারে। প্রতি এসএমএসের জন্য দুই টাকা চার্জ নেয়া হবে।

এদিকে গত ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। পরীক্ষার পর ৬০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশের কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দীর্ঘ ছুটির কারণে সেটা সম্ভব হয়নি।

তবে সরকারের অনুমতি মিললে ঈদের পর যেকোনো দিন ও সময় ফলপ্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হক।

এবার মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৭৯ জন। এসএসসিতে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৪ লাখ ২২ হাজার ১৬৮ জন। এরমধ্যে অংশ নিয়েছে ১৪ লাখ ১৬ হাজার ৭২১ জন।

Post a Comment

0 Comments