পুকুর থেকে নারী শ্রমিকের লাশ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ!


ডেস্ক রিপোর্ট :: আশুলিয়ায় পুকুর থেকে এক নারী শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করেছেন পুলিশ। নিহত ওই নারী শ্রমিকের নাম রেবেকা বেগম (২৮)। উদ্ধার হওয়া নারী শ্রমিক মানিকগঞ্জ জেলার দৌ'লতপুর থানার মুন্সিকান্দি গ্রামের নবু শেখের মেয়ে।

নিহত ওই নারী আশুলিয়ায় একটি পোশাক কারখানায় দী'র্ঘদিন ধরে কাজ করতো। রংপুর জে'লায় তার স্বামী মফিজুলের গ্রামের বাড়ি। তাদের মুন্নী আক্তার নামে ১২ বছরের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধা'র করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকার সোহরা'ওয়ার্দী মেডিকেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

গত রোববার (২৮ জুন) বিকালে আশুলিয়ার শিকদারবাগ হাবুডাঙ্গা হ্যা'চারীর মোড় এলাকার একটি পুকুরে থেকে এই মৃতদেহটি উদ্ধার করেন পুলিশ।

নিহতের ১২ বছরের মেয়ে মুন্নী আক্তার জানায়, তার বাবা মফিজুল ফেরি করে বিভিন্ন এলাকায় লু'ঙ্গি বিক্রি করতো। সে ঢাকার মিরপুরে থাকতো। এখানে তেমন একটা তার আসা হতো না। 

সে আরও জানায়, এক সপ্তাহ আগে রেবেকা মিরপুর থেকে মফিজুলকে ওই এলাকার হ্যাচারীর মোড়ে ডেকে আনে। এসময় তাদের মধ্যে কথা'কাটাকাটি হয়। এরপরে তার স্বামী মফিজুল আবার চলে যায়। শনিবার রাত ৯ টার দিকে রেবেকা আবার তার স্বা'মীর সঙ্গে দেখার করার কথা বলে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি।

জানতে চাইলে,  ঘটনার বিষয়ে আশুলিয়া থানার এসআই (উপ-পরিদর্শক) মো. এমদাদ হোসেন বলেন, এলাকার স্থানী'য়দের খবরের ভিত্তিতে ধলপুর এলাকার একটি পুকুর থেকে রেবেকা আক্তার নামে এক নারী ভাসমান লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। 

তিনি আরও জানান, নিহতের ময়না ত'দন্তের রিপোর্ট পেলে জানা যাবে এটি হত্যা না অন্য কিছু। তবে এই ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বা'মী এখনো পলাতক রয়েছে।

এদিকে সাভারের বনপু'কুর এলাকা থেকে আলেয়া আক্তার নামের আরও এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আ'শুলিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এসবাংলাপ্রো/২০/আজিজ

Post a Comment

0 Comments