অফিসের তরুণী অফিসারকে ধর্ষণ, ব্যাংক ম্যানেজার গ্রেফতার


নিজস্ব প্রতিবেদক :: যশোরের কেশবপুরে অফিসের এক সুন্দরী তরুণী অফিসারকে ধর্ষণের অভিযোগে ওই ব্যাংকের ম্যানেজারকে গ্রেফতার করে কেশবপুর থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটে শহরের প্যারাডাইস মোড়ের তৃতীয় তলা ভবনের দ্বিতীয় তলার দক্ষিণ পাশের ফ্লাটে এসএমই ব্যাংক এশিয়া কর্পোরেশন কেশবপুর শাখায়। অভিযুক্তকে সোমবার (৮ জুন) সকালে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত ব্যাংক ম্যানেজার মো. আব্দুস সামাদ (৩৬)। তিনি রাজশাহী জেলার দূর্গাপুর উপজেলার সিংগা পূর্বপাড়া গ্রামের মো. বাদল উদ্দিন মন্ডলের ছেলে। ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় ব্যাংক ও তার বাসা। এছাড়াও এর আগে ওই ম্যানেজারের কর্তৃক ব্যাংকের অন্যান্য নারী কর্মীরা যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে বলে জানা গেছে।

পুলিশ সূত্র জানা যায়, ওই ব্যাংকের ম্যানেজার  তার বাসায় একই অফিসের ফিল্ড তরুণী অফিসারকে আটকে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।  ঘটনার পর পরই ওই তরুণী অফিসার থানায় এসে অভিযুক্ত ম্যানেজারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে এ ঘটনায় অভিযুক্ত এসএমই ব্যাংক এশিয়া কর্পোরেশন কেশবপুর শাখার ম্যানেজার মো. আব্দুস সামাদকে গ্রেফতার করে। ভিক্টিম তরুণীর বাড়ি কেশবপুর উপজেলার জাহানপুর এলাকায়।

ঘটনার দিন ওই নারী ব্যাংকে উপস্থিত হয়ে অফিস খোলা না পেয়ে ম্যানেজারের বাসায় চাবি আনতে গেলে সুযোগ পেয়ে ম্যানেজার তাকে  আটকে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এসময় তরুণী জোরাজুরি করে আত্মচিৎকার করলে ব্যাংকের অন্যান্য অফিস কর্মচারীরা এসে তাকে উদ্ধার করে ম্যানেজারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়েরের জন্য কেশবপুর থানায় নিয়ে যায়। 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জসীম উদ্দিন বলেন, ওই তরুণী থানায় ধর্ষণ মামলা করেছে। অভিযুক্ত ধর্ষণকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিক্টিম ওই ব্যাংকের তরুণী অফিসারকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।



Post a Comment

0 Comments